1. admin@updatedbarta24.com : admin :
তালাক গোপন করে ঘর-সংসার : শেরপুরে স্ত্রীর ধর্ষণ মামলায় স্বামীর যাবজ্জীবন - Updated Barta 24
বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:৪৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
চাঁদপুর হাইমচর আলগী উঃ ইউনিয়ন নৌকার মাঝি আতিক পাটওয়ারী ফুলে ফুলে শিক্ত নালিতাবাড়িতে মানুষ -হাতি দ্বন্দ্ব নিরসনে সভা অনুষ্ঠিত নওগাঁর পত্নীতলায় সাংবাদিক হামলার ঘটনায় মানববন্ধন হাইমচর নীলকমলে চার বারের সফল মেম্বার খলিল মাতব্বর পুনরায় মেম্বার পদপ্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দাখিল হাইমচরে আলগী উঃ ইউনিয়নে সাবেক মহিলা মেম্বার রছুমা বেগম পুনরায় মেম্বার পদপ্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দাখিল তৃতীয় ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিজয়ী চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের গেজেট প্রকাশ নওগাঁর মান্দায় সরিষা খেতে চাষ হচ্ছে ভ্রাম্যমান মৌচাষের মাধ্যমে মধু নওগাঁর মান্দায় অভ্যন্তরীণ আমন ধান ও চাল সংগ্রহের উদ্বোধন বেলকুচিতে বেকার যুবক ও যুব মহিলাদের দক্ষতা উন্নয়ন বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মসূচির সমাপনীঃ জনগনের পবিত্র আমানত জনগণের হাতে পৌঁছে দেওয়াই হবে আমার দায়িত্ব …….. মোঃ নাজিম উদ্দীন পাটওয়ারী

তালাক গোপন করে ঘর-সংসার : শেরপুরে স্ত্রীর ধর্ষণ মামলায় স্বামীর যাবজ্জীবন

এম শাহজাহান মিয়া, ঝিনাইগাতী (শেরপুর) প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : বুধবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২১
  • ৯৭ বার পঠিত

তালাকের বিষয় গোপন করে আড়াই বছর ঘর-সংসার করার অভিযোগে স্ত্রীর দায়ের করা ধর্ষণ মামলায় শেরপুরে একজনের যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ডের রায় দিয়েছে আদালত। নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. আখতারুজ্জামান ২৩ নভেম্বর মঙ্গলবার দুপুরে এ সাজার রায় ঘোষণা করেন। মামলার শুরু থেকেই সাজাপ্রাপ্ত শ্রীবরদী উপজেলার গড়জরিপা গ্রামের বাসিন্দা শাহ আলী (৪৭) পলাতক রয়েছেন। রায়ের একইসাথে ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ৬ মাসের কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়েছে। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের পিপি মো. গোলাম কিবরিয়া বুলু রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, সদর উপজেলার বয়রা গ্রামের বাসিন্দা ভিকটিম নিজেই বাদী হয়ে ২০১৫ সালের ২৫ জানুয়ারী সদর থানায় মামলাটি দায়ের করেছিলেন। ঘটনাটি ২০১২ সালের ১৩ মে থেকে ২০১৪ সালের ১৪ নভেম্বরের মধ্যে ঘটেছে। ওই সময় স্ত্রীকে তালাক দেওয়ার বিষয়টি গোপন রেখে স্ত্রী হিসেবে ভিকটিম বাদীর সাথে ঘরসংসার এবং শারীরিকভাবে মেলামেশা করেন সাজাপ্রাপ্ত শাহ আলী। মামলার নথির উদ্ধৃতি দিয়ে পিপি জানান, স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রী ভিকটিমের দায়ের করা একটি যৌতুক মামলায় শাহ আলী ২০১৪ সালের ১২ ফেব্রুয়ারি আদালতে স্বেচ্ছায় আত্মসমর্পন করে ভিকটিমকে ২০১২ সালের ১৩ মে তালাক দিয়েছেন বলে উল্লেখ করেন। কিন্তু তখনও ভিকটিমের সাথে স্ত্রী হিসেবে ঘর সংসার করছিলেন শাহ আলী। ঘটনাটি জানার পর ২০১৫ সালের ২৫ জানুয়ারী শাহ আলী এবং তার বাবা-মা ও আরেকজন সহ ৪ জনকে আসামী করে ভিকটিম বাদী হয়ে ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৯(১) ধারায় ধর্ষণের অভিযোগে থানায় আরেকটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় সদর থানার তৎকালীণ এস্আই আবুল কালাম আজাদ শাহ আলী সহ ৪ জনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশীট দাখিল করলেও আদালত ৩ জনকে বাদ দিয়ে শাহ আলীর বিরুদ্ধে চার্জগঠন করেন। মামলার শুরু থেকেই অভিযুক্ত শাহ আলী পলাতক রয়েছেন। দীর্ঘ বিচারিক কার্যক্রম চলাকালে বাদী, তদন্ত কর্মকর্তা, চিকিৎসক সহ ৯ সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে মঙ্গলবার অভিযুক্ত পলাতক শাহ আলীকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ের আরও ৬ মাসের কারাদণ্ডাদেশ ঘোষণা করেন। রায়ে রাষ্ট্রপক্ষের পিপি গোলাম কিবরিয়া বুলু সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা